image

এনজিওগ্রামে ভয় নেই: ডা. লুৎফর রহমান

আজকাল অনেকেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে থাকেন। এসময় চিকিৎসার জন্য প্রাথমিকভাবেই অনেক পরীক্ষার প্রয়োজন হয়। এমন একটি পরীক্ষার নাম এনজিওগ্রাম। আর এর কথা শোনামাত্রই অনেক রোগী আঁতকে ওঠেন। তবে এতে ভয়ের কোনো কারণ নেই বলে জানালেন ল্যাবএইড হাসপাতালের চিফ কার্ডিয়াক সার্জন ডা. লুৎফর রহমান।

তিনি বলেন, ‘অনেকে এনজিওগ্রাম করতে ভয় পান এই ভেবে যে, এটি একটি অপারেশন। এনজিওগ্রাম মোটেও কোনো অপারেশন নয়, এমনকি পরীক্ষা চলাকালীন রোগীকে অজ্ঞানও করা হয়না শুধু অবশ করা হয়।’

ডা. লুৎফর রহমান বলেন, ‘এনজিওগ্রাম হল একটি পরীক্ষা যার মাধ্যমে হার্টের রক্তনালির ছবি তোলা হয়। এনজিওগ্রাম করে আমরা হার্টের অনেক তথ্য পেয়ে থাকি যেমন, হার্টের রক্তনালিতে চর্বি জমেছে কিনা, যদি চর্বি জমেও থাকে তবে তা শতকরা কত ভাগ, রক্তনালির কোথাও ক্যালসিয়াম জমে ব্লক সৃষ্টি করেছে কিনা ও ব্লকগুলো কতটি রক্তনালিকে আক্রান্ত করেছে এসব।’

তিনি বলেন, ‘অন্যান্য ডায়াগনোসিস’র মতো এনজিওগ্রাম একটি ডায়াগনোসিস। অনেক রোগ নির্ণয় করতে যেমন আল্টাসনোগ্রাফি করার প্রয়োজন হয় তেমনি হৃদ যন্ত্রের রক্তনালির ব্লক নির্ণয় করতে এনজিওগ্রাম করা হয়।’

প্রখ্যাত এই চিকিৎসক বলেন, ‘তবে একটি কথা না বললেই নয় সেটি হচ্ছে, এনজিওগ্রাম ভয়ের কারণ হতে পারে যদি কিনা এটি কোনো অনভিজ্ঞ চিকিৎসক দ্বারা করানো হয়। কারণ অনেক সময় রোগীর ক্রিটিকাল ব্লক থাকতে পারে যার ফলে হতে পারে অ্যারহিথিমিয়া (Arrhythmia) ও কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট(Cardiac Arrest)। অনেক চিকিৎসক এনজিওগ্রামের মধ্যেই স্টেনটিং(Stenting) করেন যা অবশ্যই ঝুঁকিপূর্ণ । সুতরাং এ ক্ষেত্রে চিকিৎসকে অবশ্যই অভিজ্ঞ হতে হবে।’